প্যারিসে অনুষ্ঠিত হল মহিত আহমেদ স্মরণসন্ধ্যা

moheet shoron1

ডেস্ক নিউজ > চিত্রকর, অভিনেতা ও উপস্থাপক প্রয়াত মহিত আহমেদ স্মরণে “অক্ষর” এর আয়োজনে প্যারিসে অনুষ্ঠিত হয়েছে- ‘মহিত আহমেদ স্মরণসন্ধ্যা’। গতকাল ৩০ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় প্যারিসের একটি হলে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মুনির কাদেরের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্যারিসের সাংস্কৃতিক কর্মীরা ছাড়াও সামাজিক সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দসহ প্যারিসে বাংলাদেশী কমিউনিটির নানা শ্রেণীপেশার মানুষ।

মহিত আহমেদকে নিবেদিত কবিতা, শোকগাঁথা কবিতা আবৃত্তি এবং স্মৃতিকথার মাধ্যমে তাঁকে স্মরণ করেন- মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের সভাপতি- জামিরুল ইসলাম মিয়া, চিত্রশিল্পী শাহাদাত হোসেন, অভিনেতা গিয়াস বাবু, সাংস্কৃতিক কর্মী অলকা বড়ুয়া, চিত্রনির্মাতা প্রকাশ রায়, কবি মোস্তফা জামান, আরিফ হাসান, ছড়াশিল্পী লোকমান আহমেদ আপন, নারীনেত্রী তৌফিকা শাহেদ, উদীচী সভাপতি কিরণময় মণ্ডল, সাংস্কৃতিক কর্মী খালেদ মাহমুদ, বিসিএফ এর সভাপতি মোহাম্মদ নূর, আবৃত্তিশিল্পী মোহাম্মদ গোলাম মোরশেদ, নজরুল অনুরাগী খোরশেদ আলম পাটোয়ারী, কবি রেজাউল হায়দার চৌধুরী , সাংস্কৃতিক কর্মী অয়ন শাহ পরান, কবি বদরুজ্জামান জামান, পুঁথিশিল্পী কাব্য কামরুল, কবি আবু যুবায়ের, সাংবাদিক ওয়াহিদুজ্জামান, সাংস্কৃতিক কর্মী রাহুল চৌধুরী, সংগীতশিল্পী সুমা দাস, আবৃত্তিশিল্পী সাইফুল ইসলাম এবং প্রয়াত মহিত আহমেদের সহধর্মিণী ফিরোজা মমতাজ মহিতসহ আরো অনেকে ।

moheet shoron2

অনুষ্ঠানের পুরোসময় এক আবেগঘন পরিবেশের মধ্যে ছিল। তাঁকে স্মরণ করে অনেকে অঝোরে কেঁদেছেন। তাঁর স্মৃতিমন্থন করতে অনেকে আপ্লুত হয়েছেন। তারা বলেন  মহিত আহমেদ  একাধারে চিত্রশিল্পী, অভিনেতা, উপস্থাপক ছাড়াও আরো অনেক গুনে গুণান্বিত ছিলেন। তিনি যে কাজগুলো করেতেন তা খ্যাতির জন্য নয়,  মানুষের জন্য  করতেন। প্যারিসের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে তিনি ছিলেন একজন নিবেদিত প্রাণ।   প্যারিসের অলিতে গলিতে রয়েছে তাঁর স্মৃতিছাপ। মহিত আহমদের অকাল প্রয়াণ মেনে নেয়া কষ্টকর হলেও মেনে নিতে হবে । কারণ মানুষ মৃত্যুকে সাথে নিয়েই জন্মগ্রহণ করেন। তিনিও এর ব্যতিক্রম ছিলেন না ।  মানুষের জন্মের স্বার্থকতা হল মৃত্যুর পূর্বে তাঁর কর্মছাপ রেখে যাওয়া। আজকের এই অনুষ্ঠান প্রমাণ করে মহিত আহমেদ সেই ছাপ রেখে যেতে পেরেছেন। মহিত আহমেদ অকালে চলে গিয়ে একটি বার্তা দিয়ে গেছেন তা হল  সময় আসলে খুবই কম কিন্তু কাজ অনেক বেশি । তাই আমাদেরকে এই অল্প সময়ে মানুষের কল্যাণে আমাদের প্রত্যেকের অবস্থান থেকে কাজ করে যেতে হবে এবং তাঁর অসম্পূর্ণ কাজ সম্পূর্ণ করতে হবে।  তারা আরো বলেন  ক্ষণকাল বেয়ে আজ মহিত অনন্তকালের অধিবাসী । তিনি তাঁর কর্মের মাধ্যমে আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন। তাঁর এই প্রস্থান আমাদেরও অনিবার্য প্রস্থান স্মরণ করে দেয়। তাই কামনা তিনি যেন পরপারে উত্তীর্ণ হন।  স্রষ্টার সান্নিধ্য সুখে অনন্ত হন।

উল্লেখ্য যে, চিত্রশিল্পী মহিত  আহমেদ   গতবছর  ৭ অক্টোবর হৃদরোগে আক্রান্ত হন এবং  ৯ অক্টোবর  রাত স্থানীয় সময় ৮ টা ৪৮ মিনিটে প্যারিসের  জর্জ পম্পিদু  হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হাসনাত জাহান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>